দুর্গাপূজায় কুমারী পূজা বিশেষ কারণ

0
332

দেবীর ‘কুমারী’নামটি বহু প্রাচীন। ‘তৈত্তিরীয় আরণ্যক’-এ প্রথম দেবীকে ‘কুমারী ব্রহ্মচারিণী’ বলে সম্বোধন করা হয়েছে।

মহাশক্তির সুনির্দিষ্ট এক অনিন্দিতা রূপময়ী আকৃতির নাম ‘কুমারী’। কুমারীশক্তি সৃষ্টির মূল বেদী। কুমারী পুজো মহাশক্তির সবটুকু সৃষ্টিক্ষমতা আর মাধুর্য মহিমা অনুভব করার আর এক নাম।

দেবীর ‘কুমারী’নামটি বহু প্রাচীন। ‘তৈত্তিরীয় আরণ্যক’-এ প্রথম দেবীকে ‘কুমারী ব্রহ্মচারিণী’ বলে সম্বোধন করা হয়েছে। ‘মহাভারত’-এর বিরাট পর্বে ও ভীষ্ম পর্বে দেবীকে ‘কুমারী’ বলেই উল্লেখ করা হয়েছে। ‘ঋগ্বেদ’-এর দেবীসূক্তে কুমারী ঋষি কন্যার মাধ্যমেই জগৎ সৃষ্টির কথাসোচ্চারে ঘোষণা করা হয়েছে। সেই কুমারীশক্তি বিশ্বপ্রসবিণী।

সেই কুমারী মাতাই আদি পিতা সৃষ্টিকর্তাকে প্রসব করেন। কিন্তু তাঁর জন্ম দেন কে? স্থানই বা কোথায়? সে যে জলধির অগাধে! সেখানেই এই শক্তির যোনির উৎস— একথা বলেছেন তিনি নিজেই। এই কারণেই কুমারী পুজোর এত মহিমা।

‘ব্রহ্মবৈবর্ত পুরাণ’-এ নারীর সম্পর্কে বলা হয়েছে, বিশ্বের সমস্ত নারী দেবী প্রকৃতির অংশরূপা। যিনি কুমারী কন্যাকে বসন ভূষণ চন্দন দিয়ে পুজো করেন তিনি আসলে প্রকৃতিরই পুজো করেন। ‘মহাভারত’-এর ভীষ্ম পর্বে অর্জুন দেবী কুমারীর পুজো করেছিলেন। ‘দেবী পুরাণ’ মতে, দেবী পুজোর পরে উপযুক্ত উপাচারে কুমারীকে ভোজন করিয়ে তৃপ্ত করতে হবে। ‘তন্ত্রসার’ গ্রন্থে বলা হয়েছে, কুমারীকে ভোজন করালে ত্রিলোককে ভোজন করানো হয়।

শিশুকন্যাকে কুমারী রূপে পুজো করার এক সূক্ষ্ম নিদর্শন রয়েছে ‘বৃহদ্ধর্ম পুরাণ’-এ। সেখানে রয়েছে, রাম কর্তৃক রাবণবধের জন্য দেবতারা ব্রহ্মার কাছে যজ্ঞ করার অনুমতি চাইলে ব্রহ্মা দেবীকে জাগরিত করার কথা উল্লেখ করেন। দেবতারা তখন আদ্যাশক্তির স্তব করলেন। সেই স্তবে সন্তুষ্টা হয়ে এক কুমারী দেবী আবির্ভূত হয়ে দেবীর বোধন করে পুজো করতে নির্দেশ দিলেন।

সেই নির্দেশ মতো ব্রহ্মা দেবতাদের সঙ্গে পৃথিবীতে এসে ঘুরতে ঘুরতে এক নির্জন স্থানে বেলগাছের একটি পাতায় সোনার বরণ এক শিশুকন্যাকে নিদ্রিতা দেখে তাঁকে‘বিশ্বপ্রসবিনী জগজ্জননী মহামায়া’ বলে স্তব করেছিলেন। ব্রহ্মার সেই স্তবেই শিশুকন্যা জাগরিতা হয়ে দেবীরূপে আবির্ভূতা হয়েছিলেন এবং দেবতাদের অভীষ্ট পূরণ করবেন বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন।

আমাদের আরাধ্যা মৃন্ময়ী নয়, সেযে চিন্ময়ী আরাধনা। রমণীর মাঝে জননীর দর্শন। এক প্রকৃতির মাঝে বিশ্বপ্রকৃতির অবলোকন— তা সহজ সরল ভাষায় বোঝাতেই কুমারী পুজোর নির্দেশ। মহামায়ার মহাপুজোয় তাই কুমারী পুজোর এত গুরুত্ব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here