দাঁতের যত্ন নেবেন কিভাবে

0
251

আমরা অনেকেই দিনে দুইবার দাঁত ব্রাশ করি এবং ঘরের ছোটো শিশুদের দাঁতের যত্ন নিতে শিখিয়ে থাকি।

কিন্তু কীভাবে দাঁত ব্রাশ করতে হবে বা দাঁত ব্রাশ করার সঠিক পদ্ধতি জানা আছে কি? হয়তো ভাবছেন, দিনে দুইবার দাঁত ব্রাশ করেই দাঁতের স্বাস্থ্য ভালো রাখা সম্ভব। কিন্তু আপনার দাঁত ব্রাশ করার ক্ষেত্রে পদ্ধতিগত ভুলের কারণেই ক্ষতি হচ্ছে আপনার মূল্যবান দাঁতের।

প্রতিবার ভুল পদ্ধতিতে দাঁত ব্রাশ করার কারণে আপনার দাঁতের মারাত্মক ক্ষয় হচ্ছে। তাই সতর্ক হোন এবং এই ভুলগুলো এড়িয়ে চলার চেষ্টা করুন।

শক্ত ব্রেসলের ব্রাশ:

সস্তার ১০-১৫ টাকা দামের ব্রাশ কিনে ভাবছেন টাকা বাঁচিয়ে ফেললেন। কিন্তু দাঁতের ক্ষতির কারণে যে আপনাকে হাজার হাজার টাকা খরচ করতে হবে সে কথা কি ভেবেছেন? এই ব্রাশগুলোর ব্রেসল অনেক শক্ত হয়ে থাকে যা দাঁতের ওপরের এনামেলের ক্ষতি করে। তাই দাম দিয়ে হলেও একটু নামী ব্র্যান্ডের ভালো নরম ব্রিসলের ব্রাশ ব্যবহার করুন।

খুব বেশি জোরে ব্রাশ করা:

অনেকে মনে করে জোরে জোরে চাপ দিয়ে ব্রাশ করলে তবেই দাঁতের ময়লা ভালো করে পরিষ্কার হবে এবং দ্রুত পরিষ্কার হবে। আর এতেই ক্ষতিটা হয় বেশি। খুব বেশি জোরে চাপ দিয়ে ব্রাশ করতে গেলে দাঁতের এনামেল নষ্ট হয়ে যাওয়ার ঝুঁকি থাকে।

অনেক বেশি সময় ধরে ব্রাশ করা:

অনেকেরই ধারণা অনেকটা সময় ধরে ব্রাশ করলে ভালো করে দাঁত পরিষ্কার হবেই। কিন্তু এটি সম্পূর্ণ ভুল একটি ধারণা। প্রতিটা জিনিসেরই একটি নির্দিষ্ট সময় রয়েছে। ২ মিনিটের বেশি দাঁত ব্রাশ করা, দাঁতের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর।

 

খাওয়ার ঠিক পরপরই দাঁত ব্রাশ করে ফেলা:

অতিরিক্ত সচেতন মানুষ দাঁতের সুরক্ষায় খাওয়ার পর পরই দাঁত ব্রাশ করে ফেলেন যা উল্টো দাঁতের ক্ষতিই করে বেশি। খাওয়ার পর পরই বিশেষ করে অ্যাসিডিক খাবার ও ফলমূল খাওয়ার পর দাঁত ব্রাশ করলে দাঁত ক্ষয় হওয়ার সম্ভাবনা অনেকটাই বেড়ে যায়। খাওয়ার পরপর কুলকুচি করে, খাওয়ার অন্তত ৩০ থেকে ১ ঘণ্টা পর দাঁত ব্রাশ করাটাই সঠিক পদ্ধতি।

দাঁত সাদা করার জন্য আপনি ভুল টুথপেস্ট বেছে নিচ্ছেন না তো:

দাঁতের ক্ষয় রোধের জন্য যেমন সঠিক ব্রাশ প্রয়োজন, ঠিক তেমনই প্রয়োজন সঠিক টুথপেস্টের। সঠিক উপাদানের টুথপেস্ট একটু বেশি দাম দেখে না কিনে বিজ্ঞাপন দ্বারা প্রভাবিত হয়ে রঙচঙে, ভালো স্বাদের টুথপেস্ট দিয়ে দিনে দুইবার ব্রাশ করেও দাঁত রক্ষা করা সম্ভব হবে না একেবারেই। সুতরাং সতর্ক হয়ে দাঁতের যত্ন নিন সঠিক পদ্ধতি মেনেই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here